মধুখালীতে আদিবাসী ও জেলে সম্প্রদায়ের উপর হামলা আহত-৪ বিচারের দাবীতে মানব বন্ধন


মধুখালীতে আদিবাসী ও জেলে সম্প্রদায়ের উপর হামলা আহত-৪
বিচারের দাবীতে মানব বন্ধন
মধুখালী(ফরিদপুর) প্রতিনিধি(দেশআমারবিডি ডট কম) ঃ
আপডেট : ০৩:৫৫, জানুয়ারী ১৬, ২০১৭
গতকাল রবিবার ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলার কামালদিয়া ইউনিয়নের ঘোড়াখালী গ্রামের আদিবাসী ও জেলে সম্প্রদায়ের উপর হামলা করেছে একটি সঙ্গবন্ধ সন্ত্রাসী দল। রবিবার রাত ৮.০০ টার সময় ঘোড়াখালী গ্রামের সন্ত্রাসী আবুল কালাম (৪৫) ও তার ছেলে জিন্না (১৮), জাহিদ (১৬) সহ তাদের দল বল নিয়ে একই গ্রামের মাঝি ও আদিবাসী সম্প্রদায়ের উপর হামলা করে। এসময় তাদের বাড়ি ঘরের কিছু অংশ ভাংচুর করে এবং কয়েক জন আদিবাসী সম্প্রদায়কে মারপিট করে আহত করে। আহতরা হলেন রনজয় (২৬), সুশান্ত সরকার (৬০), পলাশ বিশ্বাস (৩১), সুদেব বিশ্বাস (৩২) প্রমুখ। এদের মধ্যে পলাশ বিশ্বাসের অবস্থা আশংকা জনক। তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার প্রতিবাদে সোমবার সকাল ১০.০০ টায় মাঝি ও আদিবাসী সম্প্রদয়ের শত শত নারী পুরুষ ও শিশুরা ঘোড়াখালী বাজারে এক মানব বন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করে সন্ত্রাসীদের বিচার দাবী করে। সমাবেশে তারা আবুল কালাম ও তার ছেলেদের বিচার দাবী করেন। সরজমিনে গিয়ে জানা যায় আগামী ইউনিয়ন পরিষদ  নির্বাচনে পক্ষ নেওয়াকে কেন্দ্র করে আদিবাসী সম্প্রদায়ের উপর এ হামলা চালানো হয়েছে। এসময় মাঝি ও আদিবাসী সম্প্রদায়ের সুশান্ত সরকারের স্ত্রী মঞ্জিলা সরকারের সাথে কথা বললে তিনি জানান আবুল কালাম ও তার ছেলেরা বিভিন্ন সময় আমাদেরকে দেশ ছেড়ে যাওয়ার হুমকি দিয়ে আসছে। এছাড়া একই সম্প্রদায়ের অনিল কুমার বিশ্বাস, নিলা রানী বিশ্বাস, প্রভাতি রানী ও ইন্দ্র বালা এ প্রতিবেদককে জানান আবুল কালাম এলাকার একজন খারাপ চরিত্রের মানুষ বিভিন্ন সময় আমাদেরকে দেশ ছেড়ে ভারতে যাওয়ার হুমকি দিয়ে আসছে। এছাড়া নারী ধর্ষনসহ সে বিভিন্ন অপকর্মের সাথে জড়িত। তারা আরও বলেন এলাকার আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী আবুল বাশারের উপস্থিতিতে আমদের উপর হামলায় আমরা মর্মাহত হয়েছি। এব্যাপারে চেয়ারম্যান প্রার্থী আবুল বাশারের সাথে কথা বললে তিনি ঘটনার সত্যতা এবং তার উপস্থিতির কথা স্বীকার করেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মধুখালী থানায় কোন মামলা হয়নি।

No comments: