এক গ্রাম পুলিশের নামে কয়েক লক্ষ টাকা প্রতারনার মাধ্যমে হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ

এক গ্রাম পুলিশের নামে কয়েক লক্ষ টাকা প্রতারনার মাধ্যমে হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ
মধুখালী প্রতিনিধি (দেশআমারবিডি ডট কম) :
ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলার আড়পাড়া ইউনিয়নের এক গ্রাম পুলিশের বিরুদ্ধে  প্রতারনার মাধ্যমে এলাকার সাধারন মানুষের কাছ থেকে কয়েক লক্ষ  টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে  । এব্যাপারে ঐ গ্রাম পুলিশের বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসক বরাবর অভিযোগ দিয়েছে এলাকাবাসী।
জেরা প্রশাসক এর কাছে অভিযোগে এলাকা বাসী উল্লেখ করেন ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশ আড়পাড়া গ্রামের মৃত নাছের শেখের ছেলে মিরাজুল ইসলাম মিরোজ বিভিন্ন সুযোগ সুবিধার কথাবলে এলাকার সাধারন মানুষের কাছ থেকে কয়েক লক্ষ  টাক  হাতিয়ে নিয়েছে । গ্রামের বেশ কয়েকজন দরিদ্র কৃৃষক কে পুলিশের ভয় দেখিয়ে তাদের নিকট থেকে অর্থ হাতিয়ে নিয়েছে।সরজমিনে গেলে আড়পাড়া গ্রামের এনায়েত শেখের স্ত্রী  নারগীস বেগম,মৃত ওহাব শেখের স্ত্রী জাহানারা বেগম,এবং ছানার উদ্দীনের ছেলে ছলে শেখ,জয়নাল শেখের ছেলে আলতাব শেখ ও আবুল শেখ অভিযোগ করে বলেন চকিদার মিরোজ এর অত্যাচারে আমরা অতিষ্ঠ । পুলিশের ভয় দেখিয়ে  গোপন মামলার কথা বলে আমাদের নিকট থেকে, ৪০,০০০/ চল্লিশ হাজার নিয়েছে । মাঠ পাড়ার রিনা বেগম বলেন ,গ্রাম পুলিশ বিভিন্ন বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতাসহ বিভিন্ন মুযোগ সুবিধার কথা বলে অনেক মহিলাদের নিকট থেকে লক্ষাধিক টাকা নিয়েছে । এছাড়া মিরোজ দরিদ্র মানুষের রিলিফ এর চাউল কামারখালী বাজারে নিয়মিত বিক্রয় করে থাকেন। বাজারের চাউল ব্যবসায়ী মোঃ বাবর আলী বলেন গ্রাম পুলিশ মিরোজ নিয়মিত এ বাজারে বিভিন্ন কার্ডের চাউল বিক্রয় করে থাকে ।্  এ ব্যাপারে অভিযুক্ত মিরোজ এর সাথে কথা বললে তিনি  অভিযোগের বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন আমি কারো নিকট থেকে কোন টাকা নেয় নাই । আড়পাড়া ইউ পি চেয়ারম্যান  বদরুজ্জামান বাবুর সাথে কথা বললে তিনি বলেন, মিরোজ এসকল অপকর্মের সাথে জড়িত প্রমানিত হলে অবশ্যই তার সাজা পেতে হবে। তবে বিষয় গুলো আমার অজানা ।
এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক উম্মে সালমা তানজিয়া সাথে মোবাইলে বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন অভিযোগটি এখনও আমার হাতে আসেনি পেলে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

No comments: