দুর্নীতির মামলায় সাংসদ বদির ৬ মাসের জামিন

দুর্নীতির মামলায় সাংসদ বদির ৬ মাসের জামিন

দুর্নীতির মামলায় নিম্ন আদালতের দেওয়া তিন বছরের কারাদণ্ডপ্রাপ্ত কক্সবাজার-৪ আসনের সরকার দলীয় সাংসদ আব্দুর রহমান বদিকে ছয় মাসের জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট।
এই আদেশের ফলে তার মুক্তিতে বাধা নেই বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।
আজ বুধবার দুপুরে সাংসদ বদির আপিল শুনানি শেষে বিচারপতি মো. রুহুল কুদ্দুসের একক হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেন।
আদালতে সাংসদ বদির পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মাহবুব আলী। সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী নাসরিন সিদ্দিকা লিনা। দুদকের পক্ষে ছিলেন খুরশিদ আলম খান। এর আগে বুধবার সকালে জামিন চেয়ে আবেদন করেন সাংসদ বদি।
গত ১০ নভেম্বর নিম্ন আদালতের কারাদণ্ডাদেশের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আপিল করেন বদি। একই সঙ্গে জামিন আবেদনও করেন তিনি।
গত ২ নভেম্বর ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৩-এর বিচারক আবু আহমদ জমাদার সাংসদ আব্দুর রহমান বদির তিন বছরের কারাদণ্ড দেন। একই সঙ্গে তাকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে তিন মাস কারাদণ্ড দেওয়া হয়।
জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জন ও তথ্য গোপনের অভিযোগে সাংসদ বদির বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) ২০১৪ সালের ২১ আগস্ট অভিযোগপত্র দেয়। এতে বলা হয়, সার্বিক তদন্তে আবদুর রহমান বদি তার জ্ঞাত আয়বহির্ভূত ১০ কোটি ৮৬ লাখ ৮১ হাজার ৬৬৯ টাকা মূল্যমানের সম্পদ গোপন করে মিথ্যা তথ্য দিয়েছেন। এ ছাড়া ২০০৮ ও ২০১৩ সালে নির্বাচন কমিশনে দাখিল করা সম্পদ বিবরণী পর্যালোচনায় দেখা গেছে তার সম্পদের পরিমাণ ৩৫১ গুণ বৃদ্ধি পেয়েছে।

No comments: