মধুখালীতে বিবাহ রেজিষ্ট্রার নিয়োগে অনিয়মের অভিযোগ


মধুখালীতে বিবাহ রেজিষ্ট্রার নিয়োগে অনিয়মের অভিযোগ
মধুখালী(ফরিদপুর) সংবাদদাতাঃ
 ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নে বিবাহ রেজিস্ট্রার নিয়োগে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগে প্রকাশ,উপজেলার ৫ নং রায়পুর ইউনিয়নে আব্দুস ছালাম খান ,পিতা দাউদুর রহমান খান রায়পুর ইউনিয়নের দামদরদী গ্রামের বাসিন্দা হয়ে রায়পুর ইউনিয়নের বিবাহ রেজিষ্ট্রার  নিয়োগ নিয়েছেন। প্রকৃতপক্ষে সে রাজবাড়ী জেলার সদর উপজেলার সুলতানপুর ইউনিয়নের সুলতানপুর গ্রামের বাসিন্দা। বিবাহ রেজিষ্ট্রার লাইসেন্স পাবার ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের বাসিন্দা হওয়ার বাধ্যবাধকতা থাকলেও সে ভুয়া ঠিকানা ব্যবহার করে লাইসেন্স প্রাপ্ত হয়েছে। সে বর্তমানে চট্রগামে একটি বেসরকারী কোম্পানীতে কর্মরত আছে। নিয়ম বর্হিভ’ত ভাবে ৭/৮ জন লোক বিভিন্ন এলাকায় নিয়োগ দিয়ে সে বিবাহ নিবন্ধনের কাজ পরিচালনা করছে। এ সুযোগে বাল্য বিবাহের প্রবনতা বেড়ে চলছে। তিনি বিগত জোট সরকারের আমলে স্থানীয় প্রভাব খাটিয়ে বিবাহ রেজিষ্ট্রার নিযুক্ত হন। এদিকে রায়পুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. জাকির হোসেন জানান, আব্দুস ছালাম খান রায়পুর ইউনিয়নে বসবাস করেন না । মামা বাড়ীর ঠিকানা দিয়ে সে লাইসেন্স নিয়েছে। অপরদিকে রাজবাড়ীর সুলতানপর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. জালালউদ্দিন মোল্যা দাবী করেছেন আব্দুস ছালাম খান সুলতানপুর ইউনিয়নের অধিবাসী। এ অবস্থায় রায়পুর ইউনিয়ন বাসীর পক্ষ হতে আব্দুস ছালাম খানের লাইসেন্স বাতিল করে নীতিমালা অনুযায়ী রায়পুর ইউনিয়নের বাসিন্দাদের মধ্য হতে বিবাহ রেজিষ্ট্রার নিয়োগের দাবী জানানো হয়েছে।  এ বিষয়ে আব্দুস ছালাম খানের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করে তাকে পাওয়া সম্ভব হয়নি।

No comments: