‘প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের পর অনেক শিক্ষক সারারাত কেঁদেছে’

স্টাফ রিপোর্টার
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক কাজী জাহিদ তাঁর নিজ ফেসবুকে একটি মর্মস্পর্শী পোস্ট দিয়েছেন। নীচে তা হুবহু তুলে ধরা হলো। ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আপনাকে বলে আর কি হবে!!! মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আপনার গতকালের (রোববারের সংবাদ সম্মেলনে) বক্তব্যের পর অনেক শিক্ষক সারারাত কেঁদেছে। তাঁরা অনেকেই আজ নিজেদের ভাগ্যকে দুষছেন যে কেন তাঁরা শিক্ষকতা করতে এসেছিলেন। আপনি হয়তো এসব জানেন না। আপনি জানেন না যে আপনি কত বড় আঘাত করেছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আজ বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকলে নিশ্চয়ই তিনি আপনাকে এর জন্য শাসন করতেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস নেয় বলে আপনি বিষোদগার করেছেন। আপনি হয়তো জানেন না মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যে, সেই সংখ্যা শুধুমাত্র ঢাকাতে ৫% থেকে ১০%, এবং ঢাকার বাইরে ১% থেকে ৩% এর অধিক নয়। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আপনি আমাদের ৬৫ বছর বয়স পর্যন্ত চাকুরীর মেয়াদ থাকার খোঁটা দিয়েছেন! আপনি হয়তো জানেন না মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, জীবনের যে বয়সে এসে একটু বিশ্রামে থাকার কথা সেই বয়সে কাজ করেও অনেক শিক্ষকের তেমন কিছুই নেই। চাকুরি শেষে শিক্ষকরা সারা জীবনের সঞ্চয় দিয়ে এক টুকরো থাকার ঘরও অনেক ক্ষেত্রে বানাতে পারে না মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। অনেক শিক্ষককে আমি গ্রামে চলে যেতে দেখেছি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আপনি একটু দয়া করে আপনার সচিব, অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ অফিসার, কাস্টমস, ট্যাক্স, এরকম অন্যান্য ক্যাডারদের নামে-বেনামে থাকা সম্পদের সাথে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের নামে-বেনামে থাকা সম্পদ একটু মিলিয়ে দেখবেন? আপনার পায়ে ধরি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আপনি এই কাজটি অন্তত করুন, তারপর আমাদেরকে নিয়ে মন্তব্য করুন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আপনি কি জানেন যে কলেজের শিক্ষকরা প্রাইভেট পড়ালেও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা তা কখনও করেন না। কলেজের শিক্ষকদের যে সম্পদ আছে, আমাদের তা নেই। প্লিজ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আপনি সব কিছু সঠিক ডাটা নিয়ে তারপর মন্তব্য করুন, জানতে চেষ্টা করুন যে আপনার দুর্দিনে আপনার পাশে দাঁড়িয়ে যে শিক্ষকেরা জেল খেটেছিল, আর্মির হাতে নির্যাতনের শিকার হয়েছিল, তাঁরা কতটা ভাল আছে; আর তাঁরা আপনার গতকালের বক্তব্যের পরে কতটা মানসিক শান্তিতে আছে!!! মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আমাদের সম্পদ নেই, টাকাও নেই। তবে যা ছিল, তাও আপনি গতকাল কেড়ে নিলেন! আজ জাতির জনক বেঁচে থাকলে হয়তো আমাদের এমন কথা শুনতে হতো না মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। অন্তত তিনি আপনাকে শাসন করতেন, সেই বিশ্বাস আমার আছে!!!’
দৈনিক শিক্ষা থেকে নেয়া 

No comments: