ঈদে ঘরও সাজবে


Decrease font Enlarge font
দেখতে দেখতে ঈদ চলেই এলো। ঈদের আনন্দ শুধু পোশাক আর গয়নার মধ্যে সীমাবদ্ধ নয় বরং ঈদের দিন সবার সঙ্গে কুশল বিনিময় আর আতিথিয়তার মাধ্যমে পূর্ণতা পায়। আমরা ঈদে সবচেয়ে সুন্দর করে নিজেকে উপস্থাপন করতে চাই। ঠিক তেমনি আমাদের ঘরের পরিচ্ছন্নতা এবং আসবাবের বিশেষ যত্ন অন্যদের সামনে আমাদের রুচির পরিচয় তুলে ধরে।

এই অল্প সময়ে যা করতে পারি:
ঈদ সামনে রেখে ঘরের প্রতিটি অংশ পরিস্কার করতে হবে।
মনে রাখবেন বসার ঘরের অন্দরসাজ আমাদের রুচির প্রথম বহিঃপ্রকাশ। যেহেতু বিশেষ দিনে এই ঘরেই অতিথি বসবেন বসার ঘর সাজাতে হবে খুব সচেতন ভাবে।
অনেক দিন ঘরের আসবাবগুলো একই জায়গায় থাকলে কিছু জিনিসের ডেকোরেশন বদলে দিন।
সোফার কভার এবং কুশন আর জানালার পর্দাগুলো পাল্টে দিতে পারলে, দেখবেন পুরো বাড়ি ঈদের সাজে নতুন হয়ে উঠবে।
মেঝেতে কার্পেট পাতলে ঘর অনেক বেশি এলিগেন্ট লাগে। তবে শতরঞ্জিও ব্যবহার করতে পারেন। ঈদের দিন ঘরের কর্নারগুলোতে রাখতে পারেন ইনডোর প্লান্টস বিভিন্ন ধরনের ল্যাম্পশেড এবং ফুলদানিতে পছন্দের তাজা ফুল ।
তাজা ফুলের সৌরভে ঈদের আনন্দে ভরে উঠুক আমাদের ছোট ঘর।

গোছানো রান্নাঘরে কাজ হবে সহজে

ঈদ মানেই খাওয়া-দাওয়া আর বেশ কয়েকটি রেসিপি নিশ্চয়ই আমাদের বাংলানিউজের লাইফস্টাইল বিভাগ থেকেই নির্বাচন করা হবে সেই সাথে থাকবে দারুণ সব আইটেমের রান্নাবান্না। আর তাই ঈদের দিনের আনন্দের উৎস কিন্তু রান্নাঘর। কারণ সেখানেই তৈরি হবে মজার মজার সব খাবার।

ঈদে এটা কোথায় ওটা কোথায় রাখলাম এখন কাজের সময় খুঁজে পাচ্ছিনা করতে হবে না যদি আমরা পরিকল্পিতভাবে  রান্নাঘরের সবকিছু গুছিয়ে নিই।

ঈদে রান্নাঘর গোছানোর কিছু পরামর্শ:

প্রথমেই রান্নাঘর পরিষ্কার করুন

যে জিনিসগুলো অনেকদিন ব্যবহার করা হচ্ছে না, সেগুলো ফেলে দিন

বটি, ছুরি আগেই ধার দিয়ে আনুন এবং হাতের কাছে রাখুন

মসলার পাত্র, তাক সব পরিষ্কার করে রাখুন মসলার পাত্রের গায়ে নাম লিখে গুছিয়ে নিন, যেন প্রয়োজনেই হাতের নাগালে পেতে পারেন

ঈদের দিনের কাজের চাপ কমাতে কিছু বিশেষ রান্না আগেই করে ফ্রিজে রেখে দিন

ফ্রিজে যতটা সম্ভব জায়গা খালি করে পরিষ্কার করে রাখুন, তাতে ঈদের রান্না খাবার রাখতে সুবিধা হবে।

ঈদের পর বাসায় অনেক অতিথি আসেন, তখন খুব দ্রুত রান্না করার দরকার হয়। তাই বেশ খানিকটা মসলা ব্লেন্ড করে ফ্রিজে রেখে দিন, রান্না করতে কষ্ট কমে যাবে

আগেই চেক করুন প্লেট-গ্লাস, কাপ-পিরিচ, চামচ সব সেট মেলানো আর গোছানো আছে কিনা
শো-কেস আর আর কিচেন কেবিনেট থেকে সব কিছু বের করে পরিষ্কার করে গুছিয়ে রাখুন।

নিশ্চয়ই এর মধ্যে আপনি গোছাতে শুরু করে দিয়েছেন। আপনার গোছানোকে পূর্ণতা দেওয়ার জন্যই আমাদের সামান্য চেষ্টা। পরিবার ও বন্ধুদের সঙ্গে আপনার ঈদ হোক সুন্দর ও আনন্দময়।

No comments: